মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৮ জুন ২০১৮

সাধারণ আনসার প্রশিক্ষণ প্রত্যাশীদের আবেদন সহায়ক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

 

প্রথম ধাপ সাধারণ আনসার প্রশিক্ষনার্থি বাছাই-২০১৮-২০১৯

২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮খ্রি.


আবদেনকারীগণ লক্ষ্য করুনঃ

  • রাজশাহী বিভাগের সকল জেলার প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃত আবেদনকারীদের লিখিত পরীক্ষা ১৭ মার্চ, ২০১৮খ্রি. তারিখের পরিবর্তে ১৬ মার্চ, ২০১৮খ্রি. তারিখে অনুষ্ঠিত হবে।
  • চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার জেলার আবেদনকারীদের প্রাথমিক বাছাই ১৭ মার্চ, ২০১৮খ্রি. তারিখের পরিবর্তে ১৮মার্চ ২০১৮খ্রি. তারিখে অনুষ্ঠিত হবে।

এ তথ্য সংশ্লিষ্ট আবেদনকারীদের এস এম এস এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

****
২৫  ফেব্রুয়ারী, ২০১৮খ্রি.
সতর্কতাঃ

  • আপনি আবেদনকালে আপনার উচ্চতা, বয়স, শিক্ষা, জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর সম্পর্কে ভূল তথ্য দিলে বাছাই কালে বাদ পড়ে যাবেন।
  • তথ্য জালিয়াতি করে ভূলক্রমে বা কোন ক্রমে উত্তীর্ণ হয়ে প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণ করলেও আপনি আনসার একাডেমিতে আসার পরেও বাদ পড়ে যাবেন।
  • তথ্য গোপন বা জালিয়াতি করে, ১০ সপ্তাহ কোঠর পরিশ্রম করে একাডেমীর প্রশিক্ষণ শেষ করলেও স্মার্ট কার্ড তৈরীর সময় যদি আপনার তথ্য গোপন বা জালিয়াতির বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নিকট প্রকাশিত হয় আপনার কষ্টই বৃথা। আপনি স্মার্ট কার্ড পাবেন না কোন ভাবেই। আর স্মার্ট কার্ড না পেলে অঙ্গীভূত আনসার হিসেবে আপনি চাকুরীর সুযোগ পাবেন না। একাডেমীতে প্রশিক্ষণে যোগদানকালে পুনরায় আপনার উচ্চতা মাপা হতে পারে।
  • যোগ্যতা না থাকা সত্বেও যদি কেউ প্রশিক্ষণ গ্রহনের জন্য কারও সাথে টাকা পয়সা লেনদেন করেন সে দায় আপনার। স্মার্ট কার্ড পেতে হলে আপনাকে উপযুক্ত এবং সঠিক ব্যক্তি হতে হবে। আবেদনকালে এবং বাছাইকালে নিজের আর্থিক ক্ষতির কথাটি মাথায় রাখুন।
  • ভিডিপি প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত যারা তারাই ভিডিপি। জাল সার্টিফিকেট দাখিল করে ভূয়া ভিডিপি হবার চেষ্টা করবেন না। এতে আইনে সোপর্দ হতে পারেন।
  • আবেদন ফরমে আপনার নাম (বাংলায় ও ইংরেজীতে) সঠিক বানানে লিখুন। জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বরটি সঠিকভাবে লিখুন। মোবাইল নম্বরটি নিজের নম্বর দিন এবং নির্ভূল ভাবে লিখুন। এ তথ্য ভুল হলে কারন স্মার্ট কার্ড প্রিন্ট করার সময় কার্ডে ভূল প্রিন্ট হবে।
  • মোবাইল নম্বরটি সঠিক না হলে, প্রশিক্ষণকালে এস এম এস পাবেন না এবং আপনি অনেক কিছু জানবেন না। স্মার্টকার্ড পাবার পর অফার মেসেজ পাবেন না, যদি মোবাইল নম্বর নিজের না হয় বা ভূল নম্বর হয়। অংগীভূত আনসার হিসেবে সারা জীবন আপনার মোবাইল নম্বরটিই আসল সম্বল। চাকুরির যত অফার, তথ্য সব পাবেন এস এম এস এর মাধ্যমে।
  • আগে যদি আপনার স্মার্ট কার্ড থাকে আপনি আবেদন করবে না। একাধিক স্মার্ট কার্ড থাকা অন্যায়। ধরা পড়লে আপনার সকল কার্ড বাজেয়াপ্ত হবে, সনদপত্র বাজেয়াপ্ত হবে। আপনি হতে পারেন কালো তালিকাভূক্ত।
  • কোন রকম প্রতারণা ও জালিয়াতির সাথে নিজেকে জড়াবেন না।

    আপনাকে একজন গর্বিত সদস্য হিসেবে এ বাহিনী দেখতে চায়।
    --------

-------
১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮খ্রি.

সাধারণ আনসার প্রশিক্ষণার্থির যোগ্যতা , বাছাইয়ের স্থান তারিখ সময় সম্পর্কে জানতে খবরের কাগজটি সংগ্রহ করুন। যাদের কাছে খবরের কাগজ পৌছাবেনা তাদের সুবিধার্থে পর্যায়ক্রমে ওয়েবসাইটে এবং ফেসবুকে বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশিত হবে।

সাধারণ আনসার প্রশিক্ষণ প্রত্যাশিদের জানার জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্যঃ

১. সাধারণ আনসার প্রশিক্ষণার্থি বাছাই স্থায়ী কোন সরকারী চাকুরী নয়। যারা উচ্চ শিক্ষিত এবং স্থায়ী সরকারী চাকুরী খুঁজছেন তাদের এখানে আবেদন করার দরকার নেই।

২. এ প্রশিক্ষণ তাদের জন্য যাদের স্থায়ী সরকারী চাকুরিতে আবেদন করার শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই।

৩. আবেদনকারীদের বাছাই করা হবে দুটিধাপে।
প্রাথমিক বাছাই শারিরিক যোগ্যতার ভিত্তিতে।দ্বিতীয়ধাপে হবে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা।

৪. জেলা কোটা অনুযায়ী নির্দিষ্ট সংখ্যক প্রশিক্ষণার্থির চুড়ান্ত বাছাই হবে সফটওয়ারের মাধ্যমে। সুতরাং কাউকে কোন অনুরোধ করে, সুপারিশ করে কোন ফল হবে না।
৫. সঠিক আবেদন ফরম পুরণ ও দাখিল করা হলে আবেদনের শেষ ধাপে অনলাইন সিস্টেমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পাশে প্রদর্শিত নমুনার মত  প্রবেশপত্র তৈরি হবে। উক্ত প্রবেশ পত্রে আবেদনকারীর আবেদন আইডি, ছবি, জেলা, বিভাগ,ও বয়সের তথ্য থাকবে। প্রবেশ পত্রটি অবশ্য অবশ্যই প্রিন্ট করে নিতে হবে। প্রবেশ পত্র ছাড়া বাছাইয়ে অংশগ্রহণ করা যাবে না কোন ক্ররমেই।

৬. আবেদনের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সঠিক জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর। ভূয়া নম্বর প্রমানিত হলে প্রশিক্ষণ গ্রহন করেও লাভ হবে না। সঠিক জাতীয় পরিচয়পত্র ছাড়া স্মার্ট কার্ড প্রিন্ট করা যায় না।

৭. আবেদনে জন্ম নিবন্ধন নম্বর গ্রহণযোগ্য হবে না। কেউ জাতীয় পরিচয়পত্রের স্থলে জন্মনিবন্ধন নম্বর দিয়ে আবেদন করলে বাছাই কালে বাদ পড়ে যাবে। সফটওয়ারে এর ব্যবহার নেই।

৮. আবেদনকারীগণ নির্বাচিত হওয়ার অাকাংখায় কাউকে টাকা পয়সা দিয়ে প্রতারিত হবেন না। সফটওয়ার কোন সুপারিশ ও অনুরোধ গ্রহন করে না।

৯. ভিডিপি সদস্য ও অধিক উচ্চতা সম্পন্ন প্রার্থিগণ সফটওয়ারে অগ্রাধিকার পাবেন। ভূল উচ্চতা বাছাইকালে সংশোধন করা হবে।

১০. এবার কুমিল্লা, সিলেট, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও রাজশাহী রেঞ্জের অধীন জেলার প্রার্থিগণ আবেদন করতে পারবেন।

আরও পরামর্শ থাকবে। এ পেইজের সাথেই থাকুন।
ধন্যবাদ। সবার জন্য শুভকামনা।
---
আভি আইসিটি


Share with :

Facebook Facebook